বুধবার, ১৭ Jul ২০২৪, ১০:০৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
তিন বাহিনী প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ ভারতীয় নৌপ্রধানের

ছয় দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে বাংলাদেশে এসেছেন ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল দীনেশ কুমার ত্রিপাঠি। গত ১ জুলাই  সোমবার বাংলাদেশের তিন বাহিনী প্রধানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন তিনি। সফরের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তাবিষয়ক উপদেষ্টা ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন দীনেশ কুমার।

আইএসপিআর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, প্রথমে সেনাবাহিনী সদর দপ্তরে সেনাপ্রধান জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামানের সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন দীনেশ কুমার। এ সময় তারা দুদেশের বাহিনীর মধ্যকার বিদ্যমান সুসম্পর্ক আরও জোরদার করার লক্ষ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

পরে বনানীতে নৌ সদর দপ্তরে নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল এম নাজমুল হাসানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন তিনি। দুদেশের নৌপ্রধান আঞ্চলিক সমুদ্র নিরাপত্তা জোরদারকরণের লক্ষ্যে পারষ্পরিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক উন্নয়ন, সমুদ্র নিরাপত্তার ঝুঁকি মোকাবিলা ও সমুদ্র বাণিজ্য রক্ষায় বহুপক্ষীয় সহযোগিতার ক্ষেত্রকে আরও দৃঢ় করার ওপরে জোর দেন। এ ছাড়া পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে দুদেশের নৌ সদস্যদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম বৃদ্ধির বিষয়েও কথা বলেন। সেসময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের ডিফেন্স এটাশে, ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের ডিফেন্স এটাশে, নৌ সদরের পিএসওরা এবং উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বিমানবাহিনী সদর দপ্তরে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার মার্শাল হাসান মাহমুদ খানের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান। সে সময় তারা দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন।

এদিন বিকেলে ধানমন্ডি ৩২-এ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর পরিদর্শন করেন দীনেশ কুমার। ৩০ জুন ভারতীয় নৌপ্রধানের নেতৃত্বে ৪ সদস্যের প্রতিনিধি দল ঢাকায় আসেন। তিনি চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলও সফর করবেন। সেসময় বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে গ্রীষ্মকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এ ছাড়া কমান্ডার চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চল, কমান্ডার বিএন ফ্লিট এবং চেয়ারম্যান চট্টগ্রাম পোর্ট অথরিটির সঙ্গেও সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

আগামী ৫ জুলাই ঢাকা ত্যাগ করবেন তিনি।

 

এই ওয়েবসাইটের যে কোনো লেখা বা ছবি পুনঃপ্রকাশের ক্ষেত্রে ঋন স্বীকার বাঞ্চনীয় ।