বৃহস্পতিবার, ২০ Jun ২০২৪, ১২:২০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
যশোহর এয়ারপোর্ট : পাম্বার বাবুল যখন কার্য সহকারি ! ঢাকার প্লাম্বার জসিম সোনা পাচারের অভিযোগে সাসপেন্ড, চাকরিচ্যুত করা হয়নি : মালি, পিয়ন, গার্ড , প্লাম্বার দিয়ে কার্য সহকারির প্রক্সি দেয়া হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার : যশোহর এয়ারপোর্টে কর্মরত যার বাড়িও যশোহরে পাম্বার আবুল হোসেন বাবুলকে দিয়ে ওয়ার্ক এসিসটেন্ট বা কার্য সহকারির কাজ করানো হচ্ছে। দুই প্রকৌশলী বাবুকে কার্য সহকারির কাজ করায়। কাজের সাইটে গিয়ে বাবুল মহাবাবু সেজে বসে, ঘুষ ছাড়া কোন ঠিকাদারের সাইট ভিজিট করে না , সাইট ভিজিটে গিয়ে ঠিকাদারদের থেকে শতকরা হিসাবে ঘুষ হাতিয়ে নেয়। এ ভাবে বাবুল অনেক সম্পত্তির মালিক। যশোহর শহরে জায়গা-জমি , বাগান বাড়ি বিরাট সবজির বাগান, গ্রাম ্এলাকায় অনেক ধানি করেছেু এই অবৈধ ইনকাম দিয়ে।
বাবুল নিয়মিত ও সময়মত অর্থাৎ অফিস টাইমে অফিসে হাজিরা হন না বলেও ঠিকাদাররা জানান, ফলে ঠিকাদারি কাজের সাইট ভিজিটও হয় না। প্লাম্বার বাবুল অন্যের বাসায় পাম্বিং কাজে সময় দেয়। শুধু ঠিকাদারদের ঠিকাদারি কাজের সাইট ভিজিটের সময় তাকে দেখা যায়। তার বাড়ি যশোহর জেলায়। সরকারি চাকরির বিধিমালায় যে জেলায় বাড়ি সে জেলায় চাকরি করার নিয়ম না থাকলেও বাবুল দিব্যি নিজ জেলায় চাকরি করছে।
এ ব্যাপারে বাবলু জানায়, আমি কার্য সহকারি না, ইব্রাহিম কার্য সহকারি, আমি প্লাম্বার। আমার কোন সম্পদ নাই , আজ চাকরি না করলে কালকে ভাড়া বাসায় থাকতে হবে। উপসহকারি প্রকৌশলী শামীম এবং সহকারি প্রকৌশলী বায়জিদ প্লাম্বার বাবুল ও ইব্রাহিমকে দিয়ে কার্য সহকারির কাজ করাচ্ছে বলে জানা যায়।
কতিপয় ঠিকাদার জানান, প্লাম্বার বাবুল ও ইব্রাহিমকে দিয়ে কাজের সাইট ভিজিটে ঘুষ দিতে হয়, ঘুষ ছাড়া সাইট ভিজিটে যান না ।
শাহজালাল বিমানবন্দরেও গার্ড, পিয়ন, মালি, প্লাম্বার দিয়ে কার্য সহকারির কাজ করানো হচ্ছে বলে জানা যায়। এ নিয়ে একজন প্রকৃত কার্য সহকারি আপত্তিও তুলেছিলেন। কিন্ত কর্তৃপক্ষ তা আমলে নেয়নি। শাহজালালে একজন কার্যসহকারি- কাম প্লাম্বার পিআরএলএ গেছেন। দুজন ফোরম্যান দিয়ে শাহজালাল বিমানবন্দর সামাল দেয়া হচ্ছে। সোনা পাচার করতে গিয়ে প্লাম্বার জসিম সাসপেন্ড, তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়নি।

এই ওয়েবসাইটের যে কোনো লেখা বা ছবি পুনঃপ্রকাশের ক্ষেত্রে ঋন স্বীকার বাঞ্চনীয় ।