বুধবার, ১৯ Jun ২০২৪, ১০:৩৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
সিএএবি চেয়ারম্যানের মৌখিক নিদেশ অমান্য : বদলির পরও রাজশাহী বিমানবন্দরে বহাল মেশনম্যান রবিউল

বিশেষ সংবাদদাতা : সিভিল এভিয়েশনের বিরুদ্ধে মিডিয়ায় অপপ্রচারের নায়ক রাজশাহী বিমানবন্দরের তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারি রবিউলকে চেয়ারম্যানের মৌখিক নির্দেশে বদলির পরও তা কার্যকর হচ্ছে না। সিএএবির অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনকারি সদস্য প্রশাসন দপ্তরে তদবির করে তার বদলি ঠেকিয়ে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। তবে রাজশাহী বিমানবন্দরের ম্যানেজার সেতাবুর রহমান তা অস্বীকার করেছেন। ম্যানেজার বলেন, মেশনম্যান রবিউল আমার ভাগিনা না, আমার আগের ম্যানেজারের ভাগিনা।
উপপরিচালক (প্রশাসন) জানান, খোজখবর নিয়ে রাজশাহী বিমানবন্দরে কর্মরত মেশনম্যান রবিউলকে বদলি করা হবে।
সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী বিমানবন্দরের পাশে শ^শুরবাড়িতে বসবাসকারি মেশনম্যান রবিউলের বিরুদ্ধে নানা অনৈতিক কাজে সাথে জড়িত থাকার কথা শোনা যায়। তাকে এককার ঢাকায় বদলি করা হয়। আবার তদবির করে রাজশাহী বিমানবন্দরে পোস্টিং নিয়ে চলে যায় রবিউল। তার বিরুদ্ধে মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত বলেও সূত্র জানায়। সিএএবির ঠিকাদারা তাকে সমীহ করে চলেন। রাজশাহী বিমানবন্দরের ম্যানেজার এবং উপসহকারি প্রকৌশলীও তাকে সমীহ করে চলেন। অনেক সময় ম্যানেজার এবং প্রকৌশলী তাকে দাবার গুটি হিসাবে ব্যবহার করে থাকে। শামীম নামের এক ঠিকাদারের সাথে মেশনম্যান রবিউল খারাপ আচরণ করে বলেও সূত্র জানায়। তার রাড়ী রাজশাহীতে হওয়ায় স্থানীয় ও রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করে চলে রবিউল। তাকে রাজশাহী থেকে বদলি করে এমন সাধ্য কার?
সূত্র জানায়, একবার রাজশাহী বিমানবন্দরে একটি ওয়াল ধ্বসে যায়। এতে রবিউল সিভিল এভিয়েশনের বিরুদ্ধে স্থানীয় গণমাধ্যমে অপপ্রচার করতে ভুমিকা রাখে যে, রাজশাহী বিমানবন্দরে বিল্ডিংয়ের ছাদ ধ্বসে পড়েছে। এ ঘটনায় সিএএবির চেয়ারম্যান রাগান্বিত হয়ে তাকে রাজশাহী বিমানবন্দর থেকে স্ট্যান্ডরিলিজের আদেশ দেন। কিন্ত চেয়ারম্যানের আদেশ অমান্য করে চলছে সিএএবির সংশ্লিষ্ট প্রশাসন। মেশনম্যান রবিউল এখনও রাজশাহীতে বহাল। তাকে বদলি করার পর ম্যানেজার সদস্য প্রশাসনের দপ্তরে তদবির করে তার বদলির আদেশ ঠেকিয়ে দেন।

এই ওয়েবসাইটের যে কোনো লেখা বা ছবি পুনঃপ্রকাশের ক্ষেত্রে ঋন স্বীকার বাঞ্চনীয় ।