রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
৭ দিনের আল্টিমেটাম ভেস্তে : কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে রিপোর্ট : পিস্তল দেখিয়ে হুমকি : ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক ক্র‌্যাব-ডিআরইউর শেল্টারে : প্রতিবাদে বার বার মানববন্ধন

নিউজ ডেক্স : কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে ‘ঢাকা প্রতিদিনে’ গত ১৫ ডিসেম্বর বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশের পর  ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। পিস্তল বের করে হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক ক্র্যাব ও ডিআরইউর শেল্টারে, বার বার মানববন্ধন করা হচ্ছে।এ দিকে ৭ দিনের আল্টিমেটামও ভেস্তে গেছে।

গত ২৭ ডিসেম্বর ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক মনজুরুল বারী নয়নকে অস্ত্র দেখিয়ে প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে আবারও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে অপরাধবিষয়ক প্রতিবেদকদের একমাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব)।

২৭ ডিসেম্বর সোমবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) চত্বরে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। দুর্নীতি ও অনিয়মের পর্যাপ্ত প্রমাণাদিসহ অনুসন্ধানিমূলক একটি সংবাদ প্রকাশ করায় কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

এর আগে বহুল বিতর্কিত কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলাম কর্তৃক ক্র্যাব নেতা ও ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক মনজুরুল বারী নয়নকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার প্রতিবাদে গত ১৮ ডিসেম্বর ডিআরইউ চত্বরে মানববন্ধন করেন  বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়শন (ক্র্যাব) নেতৃবৃন্দ।

ওইদিন ক্র্যাব ও ডিআরইউ নেতৃবৃন্দ ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদককে হুমকিদাতা ড. তাজুল ইসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। একইসঙ্গে সরকারি ওই কর্মকর্তা রাতারাতি কীভাবে ২শ’ কোটি টাকার মালিক হলেন, তা খতিয়ে দেখতে এবং সম্পত্তি অর্জনের উৎস খুঁজে বের করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে দুদকসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ৭ দিনের আল্টিমেটার দেন সাংবাদিক নেতারা।

কিন্তু নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও এ ঘটনায় দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় সোমবারও একই দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। মানববন্ধন থেকে বিতর্কিত কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলামের শাস্তি দাবি করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৫ ডিসেম্বর ‘নামে-বেনামে শতকোটি টাকার মালিক কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলাম’ শিরোনামে ঢাকা প্রতিদিনে অনুসন্ধানী সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদ প্রকাশের জের ধরে ড. তাজুল ইসলামসহ তার অনুসারিরা ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদককে অস্ত্র দেখিয়ে প্রাণনাশের হুমকি প্রদানসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুৎসা রটিয়ে আসছেন।

এ ঘটনায় হুমকিদাতাদের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং-৮২৯, তাং-১৫-১২-২০২১) করা হয় । এ ঘটনায় হুমকিদাতাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি ও বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এই ওয়েবসাইটের যে কোনো লেখা বা ছবি পুনঃপ্রকাশের ক্ষেত্রে ঋন স্বীকার বাঞ্চনীয় ।