বুধবার, ১৯ Jun ২০২৪, ১১:০৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
প্রধানমন্ত্রী ২১ জুন ভারত যাচ্ছেন ৯ জুলাই চীনে

ডেক্স রিপোর্ট : চীনের আগে ভারত সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জুন-জুলাইয়ে নয়াদিল্লি ও বেইজিংয়ে দ্বিপক্ষীয় সফরে যাচ্ছেন তিনি। ৭ জানুয়ারির জাতীয় নির্বাচনে জয়ের পর তার এই দুই সফরকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মনে করছেন কূটনীতিকরা। এশিয়ার প্রধান দুই অর্থনৈতিক শক্তি ভারত ও চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরও গভীর করাই এই সফর দুটির লক্ষ্য।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী ২১ ও ২২ জুন সরকারি সফর হিসেবে নয়াদিল্লি যাবেন এবং তিনি ৯ থেকে ১২ জুলাই বেইজিং সফর করবেন।

আসন্ন দুটি সফরেই বাংলাদেশের অন্যতম ইস্যু তিস্তা নিয়ে আলাপ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরকে কেন্দ্র করে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি চূড়ান্ত করতে এরই মধ্যে পররাষ্ট্র সচিব বেইজিং সফর করেছেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বেইজিংয়ে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে গত সোমবার অনুষ্ঠিত দ্বিপক্ষীয় রাজনৈতিক পরামর্শের ১৩তম রাউন্ডে উভয় পক্ষ আগামী মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন চীন সফরকে কেন্দ্র করে যৌথভাবে কাজ করতে সম্মত হয়েছে।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে প্রতিবার সরকার গঠনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাধারণত প্রতিবেশী দেশ ভারতেই প্রথম দ্বিপক্ষীয় সফর করে থাকেন। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক বন্ধুত্বের কারণেই সাধারণত সেদেশেই প্রথম দ্বিপক্ষীয় সফরে গিয়ে থাকেন প্রধানমন্ত্রী। এবারও এর ব্যতিক্রম হচ্ছে না।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে জাতীয় নির্বাচন শেষ হওয়ার পরই সেখানে সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এক মাসের বেশি সময় ধরে নির্বাচন আয়োজনের পর গতকাল চূড়ান্ত ফল ঘোষিত হয়েছে দেশিটিতে।

অন্যদিকে চীন এখন বাংলাদেশের অন্যতম বৃহত্তম উন্নয়ন অংশীদার। সে কারণে প্রধানমন্ত্রীর জন্য চীন সফরও গুরুত্বপূর্ণ। গত ৩ জুন বেইজিংয়ে বাংলাদেশ-চীনের রাজনৈতিক পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর চূড়ান্ত করা হয়। গত রোববার রাতে এক সেমিনারে শেখ হাসিনার আসন্ন সফর নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন সাংবাদিকদের বলেন, ‘যা হবে আরেকটি ঐতিহাসিক ঘটনা ও গেম-চেঞ্জার। এর মাধ্যমে নতুন অধ্যায়ের সূচনা হবে।’ কালবেলা

 

এই ওয়েবসাইটের যে কোনো লেখা বা ছবি পুনঃপ্রকাশের ক্ষেত্রে ঋন স্বীকার বাঞ্চনীয় ।